বাংলাদেশের সকল সরকারি মাধ্যমিক স্কুলে ভর্তি ২০২২

বাংলাদেশের সকল সরকারি মাধ্যমিক স্কুলে ভর্তি ২০২২। সরকারি হাই স্কুলে ভর্তির আবেদন পত্র/ফরম, ফি, প্রবেশ পত্র, পরীক্ষার প্রশ্ন, বয়স ও ফলাফলসহ সকল আপডেট জানতে ভিজিট করুন – EduCareerBD.com এ। প্রতিবছরের মতো এই বছরও দেশের সকল বিভাগের অধীনে জেলা, উপজেলার সকল হাই স্কুলে প্রথম শ্রেণী থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত ভর্তি শুরু হবে খুব শীঘ্রই। সাধারণত জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে একের অধিক সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থাকে যেখানে ছেলে ও মেয়েদের জন্য আলাদা প্রতিষ্ঠান থাকে।

সরকারি বিদ্যালয়ে ভর্তি ২০২২ যোগ্যতা

১. মুক্তিযোদ্ধার সন্তান/সন্তানাদি, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান/সন্তানাদির সন্তান/সন্তানাদি, প্রতিবন্ধী, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে কর্মরত কর্মকর্তা/কর্মচারী, একই এলাকার সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে কর্মরত শিক্ষক/কর্মচারীর সন্তান কোটায় আবেদন করার সুযোগ পাবে।

২. ৫০% কোটার সুযোগ থাকবে সরকারি বিদ্যালয়ের কাছাকাছি ক্যাচম্যান্ট এরিয়ার শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে। আবেদনকারীর পিতা/মাতা/অভিভাবক যদি একই থানার ভোটার হন কিংবা নিজ বাড়ি বা ফ্লাটের মধ্যে বসবাস করেন।

অথবা, কোনো সরকারি বাসার এ্যালোটি হন কিংবা ভর্তি সার্কুলার জারির সময় ভারাটিয়া হিসেবে বসবাস করে (ইউটিলিটি সার্ভিস এর প্রত্যায়ন সাপেক্ষে)। এক্ষেত্রে তারা ক্যাচম্যান্ট এলাকার স্কুলে আবেদন করার সুযোগ পাবে।

৩. গণভবনে কর্মরত কর্মকর্তা/কর্মচারীদে সন্তানের ক্ষেত্রে গণভবন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ২% কোটা থাকবে। বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য ঐ শ্রেণির সকল আসনের ১০% কোটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণি উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর জন্য সংরক্ষিত থাকবে।

৪. একই বিদ্যালয়ে আবেদনকারী শিক্ষার্থীর ভাই/বোন কিংবা যমজ ভাই/বোন যদি আগে থেকে অধ্যয়নরত থাকে তবে আসন শূণ্য থাকা ও যোগ্যতা অনুসারে ভর্তির জন্য অগ্রাধিকার পাবে। কিন্তু এই সুযোগ একই বাবা-মার সবোর্চ্চ দুই সন্তানের জন্যই প্রযোজ্য হবে।

সরকারি স্কুলে ভর্তির ফরম Web বা SMS এর মাধ্যমে কীভাবে পূরণ করতে হয়

ক. শিক্ষার্থী সরকারি বিদ্যালয়ে ভর্তিতে আগ্রহী হলে https://gsa.teletalk.com.bd ওয়েবসাইটে আবেদন ফরম পূরণ করতে পারবে। Teletalk Pre-paid Mobile নম্বর দিয়ে SMS করে ফি দিয়ে ভর্তির আবেদন কাজ শেষ করতে পারবে।

খ. আবেদন করার সময়সূচীঃ

১. অনলাইনে আবেদন ফরম পূরণ ও ফি জমা শুরুঃ

২. অনলাইনে আবেদন ফরম জমা দেওয়ার শেষ তারিখঃ

এই সময়ের মধ্যে আবেদনকারী অনলাইনে আবেদন ফরম Submit করে User ID পাবেন। এই ইউজার আইডি দিয়ে টেলিটক প্রি-পেইড নম্বর হতে SMS এর মাধ্যমে আবেদন ফি জমা দিতে পারবে। আবেদন ফরম জমার শেষ সময়ের মাঝে যারা শুধুমাত্র User ID পাওয়া শিক্ষার্থীগণ আবেদন ফি জমা দেওয়ার শেষ সময় পর্যন্ত ফি জমা দিতে পারবে।

Web আবেদন ফরম পূরণ কীভাবে করতে হয়

ক. টেলিটক আবেদন ফরম পূরণ করতে ওফিশিয়াল ওয়েবসাইট ব্রাউজ করে আবেদন ফরম পূরণ ও সাবমিট করা যায়।

খ. অনলাইনের আবেদন ফরমের নিয়মানুসারে আবেদনকারী তার সঠিক তথ্য দিয়ে পূরণ করবে। যেসব আবেদনকারী কোটায় আবেদন করবে তারা কোটার বিষয় উল্লেখ করতে হবে নয়তো কোটা নির্বাচন করা যাবে না।

গ, আবদেন ফরমে আবেদনকারীর সদ্য তোলা রঙিন ছবি স্ক্যান করে জেপিইজি ফরম্যাট নির্দিষ্ট জায়গায় আপলোড করতে হবে। ছবির মাপ (দৈর্ঘ্য ৩০০ × প্রস্থ ৩০০ পিক্সেল)।

বাংলাদেশের সকল সরকারি মাধ্যমিক স্কুলে ভর্তি ২০২২

ঘ. আবেদন ফরম সঠিকভাবে পূরণ করে সাবমিট করা শেষ হলে Application Preview দেখা যায়। কোন ভুল ছাড়া আবেদন ফরম সাবমিট করা শেষ করলে আবেদনকারী একটি ইউজার আইডি সহ ছবি Applicant’s Copy পাবে।

ঙ. অনলাইনে পূরণ করা আবেদনপত্রের ১টি Print বা ডাউনলোড করে রাখবে। এটা ভর্তি বিষয়ে যেকোন প্রয়োজনে কাজে আসতে পারে।

চ. আবেদন ফরমে দেওয়া সকল তথ্য পরবর্তী সময় ব্যবহার করা হবে। তাই সাবমিট করার আগে সকল তথ্যের সঠিক কিনা ভালোভাবে যাচাই করতে হবে।

কিভাবে SMS এর মাধ্যমে আবেদন ফি দেওয়া যায়

ক. অ্যাপ্লিক্যান্ট কপিতে প্রাপ্ত ইউজার আইডি নম্বর দিয়ে আবেদনকারী নিম্নের যেকোনো একটি টেলিটক প্রি-পেইড মোবাইল নম্বর দিয়ে ২টি এসএমএস করে আবেদন ফি প্রতি অ্যাপ্লিক্যাশনের ক্ষেত্রে একশত দশ (১১০/-) টাকা জমা দিবে।

খ. ১ম এসএমএমঃ GSA<space>User Id(Web Application) লিখে 16222 নম্বরে সেন্ড করতে হবে।

Example: GSA<space>ABCDEF(Web Application) লিখে 16222 নম্বরে সেন্ড করতে হবে।

ফেরত এসএমএস এর মধ্যে শিক্ষার্থীর নামের সাথে একটি PIN নম্বর থাকবে। এটি দিয়ে ২য় এসএমএস করতে হবে।

গ. ২য় এমএমএমঃ GSA<space>Yes<space>PIN (প্রথম এসএমএস) লিখে 16222 নম্বরে সেন্ড করতে হবে।

Example: GSA<space>Yes<space>123456 লিখে 16222 নম্বরে সেন্ড করতে হবে।

বাংলাদেশের সকল সরকারি মাধ্যমিক স্কুলে ভর্তি ২০২২ ফলাফল/রেজাল্ট

২০২১ সালে সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ফলাফল দেওয়ার জন্য কোনো পরীক্ষা নেওয়া হয়নি। সকল বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীর যোগ্যতা অনুযায়ী নির্দিষ্ট আসনগুলো শূন্য(০) আসনে অনলাইনে লটারি দিয়ে ফলাফল প্রকাশ করা হয়। কিন্তু চলতি বছর ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে অথবা পরিস্থিতির সাপেক্ষে ব্যবস্থা নিয়ে ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

Updated: August 10, 2021 — 10:26 pm

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *